Breaking News
Home / বাংলা টিপস / জানেন কি? রূপচর্চায় বেশ কার্যকারী ‘ডাব’

জানেন কি? রূপচর্চায় বেশ কার্যকারী ‘ডাব’

ডাবের পানি স্বাস্থ্যের জন্য অনেক উপকারি। গরমে আরাম দিতে এর কোনো জুড়ি নেই। ঠিক তেমনি ডাবের শাঁস ত্বকের জন্যও বেশ উপকারি। মুখের দাগছোপ দূর করতে ডাবের পানি অনেকেই ব্যবহার করে থাকেন। তবে ডাবের শাঁস দিয়ে তৈরি মাস্ক ত্বকের গভীরে পুষ্টি পৌঁছে দেয়, ত্বক করে তোলে টানটান ও দীপ্তিময়। চলুন জেনে নেয়া যাক মাস্ক তৈরির পদ্ধতিগুলো-


এক্সফোলিয়েটিং মাস্ক .

একটি টমেটোর শাঁস বের করে তাতে দুই টেবিল চামচ দুধ দিয়ে ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে নিন। এবার ওই মিশ্রণটিতে আধাকাপ ডাবের শাঁস যোগ করুন। মিশ্রণটি ভালোভাবে মিশিয়ে মুখে আর গলায় মেখে লম্বা লম্বা স্ট্রোকে পাঁচ মিনিট এক্সফোলিয়েট করুন। এরপর আরো দশ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। এবার তোয়ালে দিয়ে চেপে চেপে মুখ মুছে নিন। এই এক্সফোলিয়েটিং মাস্কটি ত্বকের জন্য খুবই উপযোগী।

নারিশিং মাস্ক
কচি ডাবের নরম শাঁস ব্লেন্ডারে দিয়ে মসৃণ করে ব্লেন্ড করে নিন। তাতে কয়েক ফোঁটা আমন্ড বা হুইটজার্ম তেল যোগ করুন। তারপর মুখে আর গলায় ভালোভাবে মেখে কিছুক্ষণ মাসাজ করুন । মাসাজের পর আরো দশ মিনিট রাখুন। তারপর হালকা গরম পানিতে পাতলা কাপড় ভিজিয়ে তা দিয়ে ভালোভাবে মুখ ও গলা মুছে ফেলুন।

টোনিং মাস্ক
আধাকাপ ডাবের পানি বা নারিকেলের দুধের সঙ্গে একচামচ শসার রস আর তিন ফোঁটা অ্যালোভেরার জেল মেশান। এই তরলটায় তুলো ডুবিয়ে তা দিয়ে মুখ আর গলায় ভালোভাবে লাগিয়ে নিন। দশ মিনিট রেখে ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি খুব সহজেই সমস্ত দাগছোপ দূর করে ত্বক উজ্জ্বল করে তোলে।

Check Also

স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায় অনিয়মিত খাদ্যাভ্যাস : গবেষণা

অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাপন ও খাদ্যাভ্যাস স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ায়। সম্প্রতি এক গবেষণায় এ তথ্য জানা গেছে। গবেষণা …

Leave a Reply

Your email address will not be published.